ছানি যদি পুরোনো হয়

ছানি যদি পুরোনো হয়

ভয়ে বা অন্য কোনো কারণে অনেকেই তাঁদের চোখের ছানি অপসারণের জন্য সময়মতো অস্ত্রোপচার করতে চান না। এটা-ওটা চিন্তা করে দেরি করে ফেলেন। ভাবেন, এটা তো জরুরি কোনো অস্ত্রোপচার নয়—একসময় করালেই হবে। কিন্তু ছানি বেশি পুরোনো হয়ে গেলে বিপদ হতে পারে। বেশি পেকে যাওয়া ছানি বা বেশি ঘোলা লেন্স থেকে কিছু আমিষজাতীয় তরল পদার্থ চোখের লেন্সের পেছন দিক দিয়ে বেরিয়ে আসে বা চোখের অভ্যন্তরীণ অংশে প্রবেশ করে। ফলে কোণগুলো আটকে গিয়ে চোখের ভেতরে আকস্মিক চাপ বেড়ে যায় এবং গ্লুকোমা তৈরি হয়।
ফলে ধীরে ধীরে দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার পাশাপাশি হঠাৎ করে চোখ লাল হয়ে যাওয়া, ব্যথা করা ইত্যাদি উপসর্গ দেখা দিতে পারে। সেই সঙ্গে হঠাৎ করেই দৃষ্টিশক্তি আরও বেশি কমে যায়। এটি একটি জরুরি অবস্থা। চোখের অভ্যন্তরীণ চাপ দ্রুত কমিয়ে এনে ছানি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব অস্ত্রোপচার করিয়ে নেওয়াটাই এ রোগের চিকিৎসা। তবে বেশি দেরি করে ফেললে অস্ত্রোপচারের পরও হারানো দৃষ্টিশক্তি পুরোপুরি ফিরে পাওয়ার ব্যাপারটা অনিশ্চিত থেকে যায়।

ডা. পূরবী রানী দেবনাথ
চক্ষু বিভাগ, বারডেম হাসপাতাল|
১৮ জানুয়ারি ২০১৫, ০১:২৫; প্রথম আলো